কলকাতায় রেড রোডে ঈদের নামাজ স্থগিত

ঈদের নামাজ

করোনা ভাইরাসের কারণে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করার আহ্বান জানালেন ভারতের পশ্চিম-বঙ্গের ইমামরা। প্রতি বছর ঈদের সময় কলকাতার সবচেয়ে বড় জমায়েতটি হয় “রেড রোডে”। কিন্তু এবার করোনার কারণে সেই চিত্র দেখা যাবে না। স্থগিত রাখা হয়েছে “রেড রোডে” ঈদের জমাত।

কলকাতার নাখোদা মসজিদের ইমাম মোহাম্মদ সাফি জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে পশ্চিম বঙ্গ সরকারের পক্ষে যে স্বাস্থ্যবিধি জারি করা হয়েছে তা মেনে এই বছর রেড রোডে ঈদের নামাজ হবে না। আমরা সবাই মিলেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
রাজ্যের সকল মুসলিমদের তাদের নিজ বাড়িতে নামাজ পড়ার আহ্বানও জানান। এ বিষয়ে তিনি বলেন, এ মহামারীর সময় আমি সকল মুসলিমদের বলবো তারা যেন রাস্তায় অথবা খোলা জায়গায় নামাজ না পড়েন। সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনেই যেন সবাই নিজ ঘরের ভিতর তা করে।

প্রতিবছর কলকাতার ইন্দিরা গান্ধী সরণী বা রেড রোডে ঈদের নামাজ আদায় করার জন্য কয়েক লাখ মুসলিম জমায়েত করেন। ঈদ উৎসবে জমাজমাট হয়ে উঠত রাজা বাজার, খিদিরপুর, একবালপুর, নারকেলডাঙা, মেটিয়াব্রুজ, পার্ক সার্কাস সহ মুসলিম অধ্যুষিত এলাকা গুলোতে। কিন্তু করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্ভুত পরিস্থিতির জন্য এবার সবকিছু সীমিত পরিসরে করা হচ্ছে। এমনকি গত রমজানের ঈদেও এই রেড রোডে ঈদের নামাজ স্থগিত রাখা হয়েছিলো। তখন নিজ বাড়িতেই ঈদের নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা।

এদিকে কোরবানির ঈদ বা ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে শান্তি ও সম্প্রীতির বার্তা দিয়ে নিজ ঘরে থাকতে আহ্বান জানিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জি। তিনি বলেন, ‘ঈদুল ফিতরের সময় সংখ্যালঘু মুসলিম ভাইরা আমাদের সহায়তা করেছেন এবং নিজেরাও নিজেদেরকে করোনা থেকে বাঁচিয়েছেন। তাই সকলের স্বার্থেই ঘরে থাকাটা জরুরি। আমরা সবাই একই মায়ের সন্তান। কেউ তার মাকে মা বলে, কেউ বলে আম্মা, আবার কেউ বা মাদার বলে! তফাৎ শুধু এটাই। আপনারা শান্তিতে নিজ নিজ ধর্ম পালন করুন। বাইরে যেহেতু লক-ডাউন চলছে, তাই কোনো জমায়েত করতে দিতে পারছি না।’

– নিউজ ডেস্ক / খলিফা নিউজ