ইরানে সাইবার হামলা

ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে এখনও টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহূর্তে বড় কোন অঘটন ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে দু’দেশের মধ্যে। এই উত্তেজনার মধ্যেই তেহরানের সাইবার কাঠামোতে ভয়াবহ সাইবার হামলার হয়েছে। যদিও সেই ভয়াবহ সাইবার হামলা রুখে দেওয়া সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছে ইরানের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপমন্ত্রী -হামিদ ফাত্তাহি।

গতকাল রবিবার (০৯/০২/২০২০) তেহরানে স্থানীয় সাংবাদিকদের এমন কথাই জানিয়েছেন সে দেশের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপমন্ত্রী -হামিদ ফাত্তাহি। তিনি বলেন, ভাড়াটে হ্যাকাররা ইরানের সাইবার কার্যক্রমে ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, লাখ লাখ উৎস থেকে ইরানের লাখ লাখ সাইবার কেন্দ্র-কে টার্গেট করেই এই হামলা চালানো হয়। এই হামলা সফল হলে ইরানের ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক-এ ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে আসতে পারত। কিন্তু সাফল্যের সঙ্গে ইরান সেই হামলা প্রতিহত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফাত্তাহি।
তবে এদিনের এই সাইবার হামলা ইরানের ইতিহাসে সবচেয়ে ছিল ভয়াবহ বলে দাবি করেন এই উপমন্ত্রীর। তবে সাফল্যের সঙ্গে তা রুখে দিয়ে ইরানের বিজ্ঞানীরা নতুন একটি পথ খুলে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন -হামিদ ফাত্তাহি। তবে ভয়াবহ এই সাইবার হামলার চালানোর পিছনে যুক্তরাষ্ট্রের হাত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছুই বলা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপমন্ত্রী -হামিদ ফাত্তাহি।

এর আগে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান-এর ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী -মোহাম্মাদ জাওয়াদ অযারি জাহরোমি জানিয়েছিলেন, ২০১৮ সালের মার্চ থেকে ২০১৯ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত তার দেশ সর্বমোট তিন কোটি ৩০ লাখ সাইবার হামলা প্রতিহত করেছে।

– নিউজ ডেস্ক / খলিফা নিউজ