লিওনেল মেসি

গোল করার মতো দলে তেমন খেলোয়াড়ের নেই। এই অবস্থায় নিজের চোটের কারণে বাইরে থাকলেও দলের বিপদ, এমন ভাবনা থেকেই নাকি চোট নিয়েই খেলে চলেছেন বার্সেলোনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি।

কয়েক সপ্তাহ ধরে ঊরুর চোটে ভুগছেন মেসি। চোটটা পুরনো। গুরুতর নয় বলেই ব্যথাকে পাত্তা দিচ্ছেন না বার্সার এই অধিনায়ক। কিন্তু সময় মত চিকিৎসা কিংবা বিশ্রাম না নিলে ভবিষ্যতে বড় রকমের চোটে পড়তে হতে পারে এমন ভাবনা মাথায় থাকলেও আপাতত কোন পদক্ষেপ নিচ্ছেনা বার্সা।

ক্লাবের মতো বিষয়টি মাথায়ও আনছেন না মেসিও। তিনি না থাকলে কী হাল হবে দলের তা তিনি ভালো করেই জানেন। এমন চিন্তা থেকেই চোট নিয়েই খেলতে হচ্ছে। আর্জেন্টাইন এই মহাতারকা যে নিজের সেরা ফর্মে নেই সেটা টের পাওয়া যাচ্ছে গত কয়েকটি ম্যাচ ধরেই, তারপরও যতটুকু খেলছেন ওটাই ক্লাবের জন্য বড় পাওয়া। সবশেষ লেভান্তের বিপক্ষে যেই -দুই গোল করেছেন কিশোর তারকা আনসু ফাতি, তার প্রতিটিরই মূল কারিগর ছিলেন মেসি। হয়তো খুব বেশি গোল করছেন না, কিন্তু যতটুকুই করছেন তাতে গড়ছেন ম্যাচের পার্থক্য।

মৌসুমের শুরুতে কাফ মাসলের চোটে ছয় সপ্তাহ মাঠের বাইরে ছিলেন বার্সার অধিনায়ক। সেই সময়টাতে বার্সা ভুগেছেও যথেষ্ট, হেরেছে ম্যাচ। এবার তো অবস্থা আরও গুরুতর। দলের মূল ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেজ মে-মাসের আগে মাঠে নামতে পারবেন না চোটের কারণে, আরেক ফরোয়ার্ড -উসমানে ডেম্বেলে সোমবার অনুশীলন করতে নেমে আবারও উঠে গেছেন চোট লাগায়। ব্রাজিলিয়ান গোল রক্ষক নেতো আর মিড ফিল্ডার আর্তুরো ভিদালও দলের বাইরে আছেন চোটের কারণেই। বার্সাই যেন এখন ছোটখাটো হাসপাতাল!

গত সোমবার অনুশীলনে -মেসির চোট ধরা পড়ার পর বেশি অস্বস্তি দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন একটি সূত্র। একইদিনের চোট থেকে ফিরে আবারও উঠে গেছেন ডেম্বেলে। সব মিলিয়ে বেশ একটা গুমোট অবস্থা আর চাপা দুশ্চিন্তা থাকছে বার্সার ড্রেসিংরুমে।

দুই ফরোয়ার্ড বাইরে থাকায় বার্সার নতুন কোচ -কিকে সেঁতিয়েনের হাতে গোল করার মতে খেলোয়াড় বলতে আছে কেবল মেসি, অ্যান্টনে গ্রিজ ম্যান ও আনসু ফাতি। বিকল্প খুঁজতে কোচকে হাত বাড়াতে হচ্ছে ‘বি’ দলের খেলোয়াড়দের দিকে। যেখান থেকেই খেলোয়াড় আনুক না কেনো, সেই খেলোয়াড় যে মেসির পর্যায়ের নন সেটা ভালো জানে সেঁতিয়েনের। আর সবচেয়ে ভালো জানে মেসি নিজেই। তাই সব বুঝে-শুনে কষ্ট সয়ে নতুন কোচকে গুছিয়ে ওঠার সময় দিচ্ছেন অধিনায়ক।

– নিউজ ডেস্ক / খলিফা নিউজ